কেনো ইউকেতে ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হতে যাচ্ছে?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা হলো একটি ভিসা ধরন যা স্থানিক ভাষায় “অনুযায়ী ভিসা” নামেও পরিচিত। ইউকে ডিপেন্ডেন্ট ভিসাভিসা কার্যকর হলো যখন কেউ অন্য একটি ব্যক্তির সাথে সংযোগ থাকতে চায় এবং সে ব্যক্তি ইউকেতে থাকে বা যে কোন সময় ইউকেতে যাচ্ছে। ইউকেতে ডিপেন্ডেন্ট ভিসা এখন বন্ধ হতে যাচ্ছে এবং এর কারণগুলো জানা গুরুত্বপূর্ণ। এই আর্টিকেলে আমরা জেনে নেব কেন ইউকেতে ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হতে যাচ্ছে এবং এর প্রভাব কী হতে পারে।

কেনো ইউকেতে ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হতে যাচ্ছে?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হতে যাচ্ছে কারণ ইউকেতে একটি ব্যাক্তি অবিলম্বে প্রবাসী হিসেবে প্রবেশ করতে পারবেন এবং কর্মস্থলে সঠিকভাবে কাজ করতে পারবেন। কিন্তু বর্তমানে এই ভিসার মাধ্যমে ইউকে যাওয়া বন্ধ করা হয়েছে। এর কারণগুলো নিম্নে দেওয়া হলো:

 করোনাভাইরাস (COVID-19) প্রতিরোধের মাধ্যমে

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হতে যাচ্ছে প্রথমত করোনাভাইরাস (COVID-19) প্রতিরোধের মাধ্যমে। পূর্বে এই ভিসা দিয়ে যে ব্যক্তিরা ইউকে যেতে চাইতেছিলেন, তাদেরকে পূর্বের মতো অনুমতি দেওয়া হতো। কিন্তু প্রশাসনিক নির্দেশাবলীর কারণে এখন ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হয়েছে। এটি করোনাভাইরাসের সাম্প্রতিক প্রতিষ্ঠানগুলির আচরণ ও নিয়মাবলীর অংশ হতে পারে।

বিষয়শ্রেণীবিহীন প্রমাণ সরবরাহের অভাব

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হওয়ার একটি অন্য কারণ হলো বিষয়শ্রেণীবিহীন প্রমাণ সরবরাহের অভাব। ডিপেন্ডেন্ট ভিসা যেহেতু অন্য একটি ব্যক্তির ভিসা, তাই বিষয়শ্রেণীবিহীন প্রমাণ দাখিলার প্রয়োজন হয়। যেহেতু এই সময়ে করোনাভাইরাসের মতো একটি মহামারী সতর্কতার অবস্থা রয়েছে, সরকার বিশেষ ধারন গ্রহণ করেছে এবং প্রমাণ সরবরাহের জন্য আরো প্রশাসনিক নির্দেশাবলী অবলম্বন করছে।

সীমান্ত নিরাপত্তা

অন্য একটি কারণ হলো সীমান্ত নিরাপত্তা। ডিপেন্ডেন্ট ভিসা একটি ব্যক্তির যাত্রা সীমান্তের মধ্যে নিরাপদ এবং সুস্থতা নিশ্চিত করে তোলে। কিন্তু সীমান্ত নিরাপত্তা সংক্রমনের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং সেই ক্ষেত্রে সরকার বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করছে। তাই ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ করা হয়েছে যাতে সীমান্ত নিরাপত্তার উপকারিতা সংগ্রহ করা যায়।

পরিবার সংযোগ

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা একজন ব্যক্তির ইউকে থাকার মাধ্যমে তার পরিবার সংযোগ বজায় রাখার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু পরিবারের সদস্যের কাছে যখন একজন ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বিদ্যমান থাকে তখন সেই ব্যক্তির সাথে সময় কাটানো বিষয়ে বিভিন্ন ব্যাধা পরে যেতে পারে। সীমান্ত নিরাপত্তা, পরিবার সংযোগ ও করোনাভাইরাসের সমস্যার মধ্যে সমন্বয় করে সরকার ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ করেছে।

 ডিপেন্ডেন্ট ভিসা এবং অর্থনৈতিক প্রভাব

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা একজন ব্যক্তির সমর্থন প্রদান করতে পারে কিন্তু এর সাথে সাথে অর্থনৈতিক প্রভাবও পরে যাচ্ছে। ডিপেন্ডেন্ট ভিসার মাধ্যমে প্রবাসী ব্যক্তি কর্মস্থলে সক্রিয়ভাবে যোগদান করতে পারছেন এবং অন্য ব্যক্তির সাথে সংযোগ রাখতে পারছেন। ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হওয়া সময় এই অর্থনৈতিক প্রভাব পরিস্থিতিতে প্রশ্ন সৃষ্টি করছে।

বাস্তবমূলক যাত্রা প্রতিষ্ঠানের অভাব

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধের একটি অন্য কারণ হলো বাস্তবমূলক যাত্রা প্রতিষ্ঠানের অভাব। ডিপেন্ডেন্ট ভিসা দ্বারা সহজেই যাত্রা করা যায় এবং সরকার বিশেষ প্রয়োজনে সেই ব্যক্তিদের জন্য এই সুযোগ সৃষ্টি করে ছিলো। কিন্তু বাস্তবমূলক যাত্রা প্রতিষ্ঠানের অভাবের কারণে ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

কেনো ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হওয়া উচিত?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হওয়ার সিদ্ধান্তের কারণে কিছু উচিত প্রশ্নগুলি নিচে দেওয়া হলো:

করোনা মুক্ত দেশে ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হওয়া উচিত কেন

করোনাভাইরাসের মহামারীর সময়ে ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ করা উচিত কারণ করোনা সংক্রমণ এখনও বিশেষ ঝুঁকিপূর্ণ বিভাগে বিলম্ব করছে। তাই সংক্রমণ থেকে বাঁচতে এবং সীমান্ত নিরাপত্তা পালন করতে ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ করা হয়েছে।

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধের ফলে কাজের ক্ষতি হচ্ছে কি না

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধের ফলে নিরাপত্তা ও যাত্রা প্রতিষ্ঠানের অভাবে কাজের ক্ষতি হচ্ছে। যাত্রা বন্ধ হলে কিছু মানুষ অন্য দেশে কাজে যাত্রা না করতে পারে এবং অনেকের আর্থিক অবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। তাছাড়াও এটি ডিপেন্ডেন্ট ভিসা ধারণ করে থাকার সুযোগ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।

Read more about work permit visa

নিউজিল্যান্ড ওয়ার্ক পারমিট ভিসা ২০২৩

ইউকে সিজনাল ভিসায় কর্মী 45 হাজার কর্মী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

কানাডা ডিপেন্ডেন্ট ভিসা কি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধের কারণ কি হতে পারে?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধের কারণ হতে পারে সংক্রমণের ঝুঁকি, সীমান্ত নিরাপত্তার জন্য সংক্রমণ বিধেয়তা, সরকারের নিরাপত্তা প্রদান করতে অক্ষমতা ইত্যাদি।

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হলে কি করণীয়?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হলে আপনাকে অন্য ভিসা পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে যাতে বিদেশে থাকা সম্ভব হয়। আপনার বিদেশী পরিবার সদস্যদের পরামর্শ নিয়ে থাকতে হবে এবং নিজেকে বিদেশের পরিবেশে সুরক্ষিত রাখতে হবে।

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা কেন বন্ধ হচ্ছে?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হচ্ছে কারণ করোনাভাইরাসের মহামারীর পরিচালনায় আরও সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য। ডিপেন্ডেন্ট ভিসা ধারণ করা ব্যক্তিদের সুস্থতা এবং সীমান্ত নিরাপত্তা সম্পর্কে ঝুঁকি নিয়ে আছে।

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা হলো কি?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা হলো একজন ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্কিত ভিসা ধারণ করার জন্য ব্যক্তির সঙ্গে বিদেশী স্বামী/স্ত্রী, পিতা/মাতা, ছেলে/মেয়ে বা ভাই/বোনের বিদেশী স্থায়ী বিশেষ ভিসা প্রয়োজন হয়।

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধের পরিবর্তে অন্য কোন ভিসা প্রাপ্ত করতে পারি?

ডিপেন্ডেন্ট ভিসা বন্ধ হলে আপনি অন্য কোন ভিসা প্রাপ্ত করতে পারেন, যেমন ট্রানজিট ভিসা, টুরিস্ট ভিসা, ওয়ার্ক ভিসা, অসাময়িক পরিবার ভিসা ইত্যাদি। প্রয়োজনে বাংলাদেশের বাংলাদেশি দূতাবাসে যোগাযোগ করুন এবং আপনার পরিসংখ্যানের উপর ভিসা প্রয়োজন সম্পর্কে তাদের পরামর্শ নিন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *