অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই-২০২৩

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই এবং জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি প্রিন্ট বা ডাউনলোড করা শিখতে হলে আমাদের সাথেই থাকুন। আজ আমরা এখানে কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে হয় এবং জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি প্রিন্ট দিতে হয় তা জানুন।

অনেক সময় আমাদের জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি প্রয়োজন হয়। তাছাড়া, জন্ম নিবন্ধনের বিভিন্ন তথ্য সঠিক আছে কিনা তা জানার জন্য জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার প্রয়োজন। অনলাইনে নিজেই নিজের জন্ম নিবন্ধন যাচাই করে দেখতে পারবেন।

বাংলাদেশের প্রত্যেক নাগরিকের ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনলাইনে দেখা যায়। আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জন্ম তারিখ জানা থাকলেই আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে যাচাই করতে পারবেন। তাই কিভাবে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন দেখানো হলো।

কম্পিউটার দিয়ে জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

কম্পিউটার দিয়ে জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করার জন্য ভিজিট করুন everify.bdris.gov.bd লিংকে। এখানে আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি লিখুন এবং জন্ম তারিখ লিখুন, জন্ম তারিখটি অবশ্যই প্রথমে সাল, পরে মাস এবং পরে তারিখ লিখুন। তারপর ক্যাপচা সমস্যার উত্তর লিখে সার্চ বাটনে ক্লিক করুন। আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য দেখতে পাবেন।

শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে পারবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন বা ডিজিটাল কিনা।

জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাইয়ে ১৭ ডিজিটের কম নাম্বার হলে আপনি অনলাইনে তথ্য যাচাই করতে পারবেন না।

কম্পিউটার থেকে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন,

ধাপ-১: জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য everify.bdris.gov.bd ওয়েবসাইটে যান।

ধাপ-২: তারপর, আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন ইংরেজিতে লিখুন ও জন্ম তারিখ বাছিই করুন।

ধাপ-৩: ক্যাপচা প্রশ্নের উত্তর লিখুন। তারপর সার্চ বাটনে ক্লিক করুন।

ধাপ ১ঃ প্রথমে জন্ম নিবন্ধন তথ্যা যাচাই অনলাইন ওয়েব সাইটে everify.bdris.gov.bd যান। নিচের মত একটি পেইজ পাবেন। 

জন্ম নিবন্ধন যাচাই-২০২৩

ধাপ ২ঃ এখানে আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি ইংরেজিতে লিখুন ও জন্ম তারিখ লিখুন। জন্ম তারিখ লিখার সময় অবশ্যই প্রথমে জন্ম সাল, পরে মাস এবং সবশেষে তারিখ প্রদান করুন।। অর্থাৎ প্রথমে জন্ম সাল তারপর একটি হাইপেন (-) তারপর মাস দিয়ে একটি হাইপেন (-) এবং সবশেষে তারিখ। প্রয়োজনে ছবিতে দেখুন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই;

ধাপ ৩ঃ এবার আপনি রোবট কিনা তা যাচাইয়ের জন্য একটি ক্যাপচা প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। এখানে সাধারণত কোন যোগ-বিয়োগ প্রশ্ন দেয়া হয়। তার সঠিক উত্তর লিখে সার্চ বাটনে ক্লিক করে আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই-২০২৩;

জন্ম নিবন্ধনের তথ্য সঠিক থাকলে আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য দেখতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড

যদি উপরের দেখানো নিয়মে আপনার জন্ম নিবন্ধন চেক করতে পারেন, তাহলে বুঝতে পারবেন আপনার জন্ম নিবন্ধনটি ডিজিটাল। আপনার ইউনিয়ন, পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশন অফিস থেকে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ সংগ্রহ করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার জন্য উপরের ছবিটি আপনার স্ক্রিনে আসার পর আপনার কম্পিউটার থেকে প্রিন্ট কমান্ড চাপ দিয়ে প্রিন্টার প্রোপারটিজে “সেইভ এস পিডিএফ বা প্রিন্ট টু পিডিএফ) সিলেক্ট করে পিডিএফ ফাইল হিসেবে সেইভ করতে পারেন।

অথবা আপনার প্রিন্টার থাকলে, আপনি জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই কপিটি প্রিন্ট করে নিতে পারেন এবং ভবিষ্যতের জন্য সংরক্ষণ করতে পারেন। এছাড়া জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার আলাদা কোনো উপায় নেই এখন পর্যন্ত।

মোবাইল দিয়ে জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

মোবাইল দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য মোবাইলের যে কোন ইন্টারনেট ব্রাউজার খুলে ভিজিট করুন everify.bdris.gov.bd লিংকে। এখানে আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি লিখুন এবং জন্ম তারিখ লিখুন, জন্ম তারিখটি অবশ্যই প্রথমে সাল, পরে মাস এবং পরে তারিখ লিখুন। তারপর ক্যাপচা সমস্যার উত্তর লিখে সার্চ বাটনে ক্লিক করুন। আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য দেখতে পাবেন।

শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে পারবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন বা ডিজিটাল কিনা।

জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাইয়ে ১৭ ডিজিটের কম নাম্বার হলে আপনি অনলাইনে তথ্য যাচাই করতে পারবেন না।

মোবাইল থেকে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন,

ধাপ-১: জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য everify.bdris.gov.bd ওয়েবসাইটে যান।

ধাপ-২: তারপর, আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন ইংরেজিতে লিখুন ও জন্ম তারিখ বাছিই করুন।

ধাপ-৩: ক্যাপচা প্রশ্নের উত্তর লিখুন। তারপর সার্চ বাটনে ক্লিক করুন।

ধাপ ১ঃ প্রথমে জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন ওয়েব সাইটে everify.bdris.gov.bd যান।

ধাপ ২ঃ এখানে আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি ইংরেজিতে লিখুন ও জন্ম তারিখ লিখুন। জন্ম তারিখ লিখার সময় অবশ্যই প্রথমে জন্ম সাল, পরে মাস এবং সবশেষে তারিখ প্রদান করুন।। অর্থাৎ প্রথমে জন্ম সাল তারপর একটি হাইপেন (-) তারপর মাস দিয়ে একটি হাইপেন (-) এবং সবশেষে তারিখ। প্রয়োজনে উপরের ছবিতে দেখুন।

ধাপ ৩ঃ এবার আপনি রোবট কিনা তা যাচাইয়ের জন্য একটি ক্যাপচা প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। এখানে সাধারণত কোন যোগ-বিয়োগ প্রশ্ন দেয়া হয়। তার সঠিক উত্তর লিখে সার্চ বাটনে ক্লিক করে আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধনের তথ্য সঠিক থাকলে আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য দেখতে পারবেন।

১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন যাচাই

যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিটের হয় এটি ১৭ ডিজিটে রুপান্তর না করে আপনি অনলাইনে যাচাই করতে পারবেন না বা আপনার ১৬ ডিজিটের নিবন্ধন সনদটি কোন কাজে ব্যবহার করতে পারবেন না। তাই আপনার হাতে থাকা জন্ম নিবন্ধন সনটির নম্বর ১৭ ডিজিটের করতে হলে আপনার নিবন্ধক কার্যালয়ে যোগাযোগ করতে হবে। সেখানে দায়িত্বরত কর্মকর্তা/কর্মচারী তাদের এডমিন ইউজার হতে আপনার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার ১৭ ডিজিটে রুপান্তর করে আপনাকে এক কপি জন্মসনদ প্রদান করবেন। বর্তমানে জনসংখ্যা বৃদ্ধির পরিমাণ মাথা রেখে এটিকে ১৭ ডিজিটে রুপান্তর করা হয়।

নিবন্ধন তথ্যসমূহ সম্পূর্ণ অনলাইন বেইজড করা হয়েছে। তাই যদি আপনার নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিট হয়ে থাকে, এর ১৭ ডিজিট নম্বর ও আপডেটেড ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড সংগ্রহ করে নিন।

নতুন জন্ম নিবন্ধন ও জন্ম নিবন্ধন সংশোধন আবেদন করার নিয়ম জানতে নিচের পোস্টগুলো পড়ুনঃ

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন আবেদন করার নিয়ম ২০২৩
অনলাইনে নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ করার সঠিক নিয়ম ২০২৩

জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই সম্পর্কিত প্রশ্ন ও উত্তর

জন্ম নিবন্ধন যাচাই ওয়েবসাইট লিংক কোনটি?

জন্ম নিবন্ধন যাচাই ওয়েবসাইট everify.bdris.gov.bd

পুরাতন হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন কিভাবে যাচাই করব?

পুরাতন হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন নম্বর ১৭ ডিজিট হলে সরাসরি everify.bdris.gov.bd লিংকে গিয়ে যাচাই করতে পারবেন। যদি জন্ম নিবন্ধন তথ্য পাওয়া না যায়, সঠিক ও ১৭ ডিজিটের নম্বরটি সংগ্রহ করুন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *